পণ্যের নামঃ লইট্টা শুটকি (চিকন) Loitta Dry Fish

শুটকির বৈশিষ্ট্য:

* সম্পূর্ণ বিষমুক্ত এবং প্রাকৃতিক উপায়ে রোদে শুকানো কক্সবাজার, মহেশখালী, টেকনাফ ও বোটের শুকানো স্বাস্থ্যসম্মত শুটকি।

* স্বাস্থ্যসম্মতভাবে প্রক্রিয়াজাতকৃত ফলে মাছের স্বাদ ও পুষ্টিগুণ অটুট থাকে।

* কোন রকম ক্ষতিকারক কেমিক্যাল ব্যাবহার করা হয়না বলে বাজারের শুটকির চেয়ে আমাদের শুটকি অপেক্ষাকৃত উজ্জ্বল ও বেশী চকচকে।

* আমাদের শুটকিতে গ্লিসারিন  ব্যাবহার করা হয় বলে বাজারের শুটকির মত পচা গন্ধ হয় না।

* বাজারের শুটকির চাইতে আমাদের শুটকি অপেক্ষাকৃত বেশী শুকানো  হয় বলে ওজনে অনেক বেশী হয়।

* আমরা শুটকি শুকানোর আগেই কাচাঁ মাছের থেকে নাড়িঁভুড়ি নিয়ে ফেলি তাই পরিষ্কার থাকে ও ওজনে বেশী হয়।

* বাজারের শুটকিতে অধিক লাভের আশায় অনেক বেশী পরিমাণে লবন ব্যবহারের ফলে বেশী লবন ভাব থাকে।

কিন্তু আমরা লবন ব্যবহার করি না। তাই ওজনে হালকা হয় স্বাদও ভাল থাকে।

*বাজারের শুটকির আদ্রতার পরিমাণ অনেক বেশী প্রায় ৩০–৪০%, কিন্তু আমাদের শুটকির আদ্রতা ১০–১৫%

* বাজারের শুটকিতে তৈল ও চর্বির পরিমাণ ১০–১৫%, আমাদের শুটকিতে তৈল ও চর্বির পরিমাণ ৫–৮%।

ডেলিভারী  পেমেন্ট পদ্ধতিঃ

=> সারা দেশের যে কোন স্থানে ডেলিভারী দেওয়া হয়।

=> ডেলিভারী চার্জ (কুরিয়ার চার্জ) মাত্র ১০০ টাকা।  ২০০০ টাকার অধিক অর্ডার করা হলে ডেলিভারী চার্জ ফ্রি

=> প্রতিটি পন্যের জন্য ক্যাশ অন ডেলিভারী পদ্বতি (পন্য হাতে পাওয়ার পর পেমেন্ট দিতে হবে) রয়েছে। শুধু মাত্র কুরিয়ার চার্জ (১০০ টাকা) অগ্রিম দিলে হবে।

=> প্রতিটা পন্য সুন্দরবন কুরিয়ার ও এস, এ, পরিবহন এর মাধ্যমে পাঠানো হবে এবং পন্য হাতে পাওয়ার পর কুরিয়ার এ সম্পুর্ন টাকা পেমেন্ট করতে হবে।

=>  ভিসা/মাস্টার কার্ড, DBBL ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড কিংবা বিকাশের মাধ্যমে আপনি মূল্য প্রদান করতে পারেন।

অন্যান্যঃ আমাদের আপলোড করা পণ্য ছাড়াও আপনার পছন্দের কক্সবাজারের যেকোনো পণ্যের জন্য আমাদের বলতে পারেন।

রেসিপি: লইট্টা শুঁটকি ভুনা

উপকরণ:

পরিষ্কার করা লইট্টা শুঁটকি- ১ কাপপেঁয়াজ কিউব করে কাটা- ১/২ কাপরসুনের কোয়া- ১/২ কাপ (কেটে নেওয়া)  শুকনা মরিচ- ২টিতেল- প্রয়োজন মতোপেঁয়াজ কুচি- ১/২ কাপরসুন বাটা- ১/২ টেবিল চামচআদা বাটা- ১ চা চামচমরিচ গুঁড়া- ১ টেবিল চামচহলুদ গুঁড়া- ১ চা চামচলবণ- স্বাদ মতোকাঁচা মরিচ- কয়েকটিপ্রস্তুত প্রণালিশুকনো তাওয়ায় পরিষ্কার করা শুঁটকি টেলে নিন। ফুটন্ত গরম পানিতে টেলে নেওয়া শুঁটকি ভিজিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট। এতে শুঁটকিতে থাকা আলগা ময়লা দূর হবে। আরও পাঁচ থেকে ছয়বার শুঁটকি কচলে ধুয়ে নিন গরম পানিতে।  প্যানে তেল গরম করে শুকনা মরিচ টুকরো করে দিয়ে দিন। ধুয়ে রাখা শুঁটকি ও রসুনের কোয়া দিয়ে কয়েক মিনিট ভেজে নিন। লবণ ও হলুদের গুঁড়া দিয়ে নাড়ুন। কিউব করে কাটা পেঁয়াজ দিয়ে দিন। পেঁয়াজের রঙ বদলে যাওয়া শুরু করলেই মিশ্রণটি উঠিয়ে নিন প্যান থেকে। একই প্যানে আরও খানিকটা তেল দিন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে নাড়ুন। পেঁয়াজ নরম হয়ে গেলে আদা ও রসুন বাটা দিয়ে নেড়ে নিন। মরিচের গুঁড়া, হলুদের গুঁড়া ও স্বাদ মতো লবণ দিয়ে সামান্য পানি দিন। ভালো করে কষিয়ে নিন মসলা। শুঁটকির মিশ্রণ দিয়ে নেড়েচেড়ে নিন। প্যান ঢেকে দিন। মাঝে কয়েকবার নেড়ে দেবেন। অল্প অল্প করে পানি দিয়ে রান্না করুন শুঁটকি। তেল ভেসে উঠলে কাঁচা মরিচের টুকরা দিয়ে কয়েক মিনিট ঢেকে রাখুন। নামিয়ে পরিবেশন করুন গরম ভাতের সঙ্গে।